২৩ ঘন্টা ৬০ মিনিট ( অনীশ দেব ) – [ 23 ghonta 60 minit by Anish Deb ]

(2 customer reviews)
  • জ্ঞান হোক উন্মুক্ত

    আমরা বিশ্বাস করি, জ্ঞানপ্রাপ্তির অধিকার রয়েছে সবার ।
  • এটি লাইব্রেরীর ডিজিটাল ভার্সন ব্যতীত অন্য কিছু নয়

    লাইব্রেরীতে গিয়ে সবাই যেমন বই পড়ে, তেমন ভাবে এখানেও পড়বে।
  • উন্নততর প্রযুক্তি

    আমাদের লাইব্রেরীতে থাকা বই ডাউনলোড যোগ্য নয়, উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বইগুলো কেবলমাত্র পড়ার জন্যে উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।
  • এই লাইব্রেরীতে দেয়া বই, বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারযোগ্য নয়

    যেহেতু লাইব্রেরীতে দেয়া বই কেবলমাত্র পড়ার জন্য, কোন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের দায় বুকশেলফ এর উপর বর্তাবে না।
  • বই ডাউনলোড যোগ্য নয়

    এই লাইব্রেরীতে দেয়া বই ডাউনলোড করার উপযোগী নয়।
5.0/5
2 reviews
2
0
0
0
0
  1. Taslima Rahman Ritu‎

    বইঃ
    ১ম খন্ড:২৩ ঘন্টা ৬০ মিনিট
    ২য় খন্ড: ৬০ মিনিট ২৩ ঘন্টা
    লেখক:অনীশ দেব
    পৃষ্ঠা:১ম খন্ড ২৫৮
    ২য় খন্ড ৩৬৮

    প্রকাশকালঃ২০১০ এবং ২০১৪
    প্রকাশনীঃপত্র ভারতী
    মূল্যঃগায়ের মূল্য
    ১ম খন্ড ১৪০ টাকা
    ২য় খন্ডঃ২৫০ টাকা

    সুদূর ভবিষ্যতের কল্প ঘটনা নিয়ে লেখা বইটি।ধনীরা আরো ধনী আর গরিবেরা আরো গরিব হতে হতে একসময় দু’ভাগে ভাগ হয়ে গেল শহর।ওল্ড সিটি হল গরিবের জন্য নেই কোন মৌলিক চাহিদা পূরনের ব্যবস্থা।বেকারত্ব শিক্ষার অভাব,রোগ শোকে কাতর ওল্ড সিটি।ওদিকে নিউ সিটি আলোয় ঝলমল।প্রযুক্তির সব উপহার তাদের ই জন্য।

    ওল্ড সিটির ‘জিশান’ নামের এক পরিস্থিতির শিকার ‘ফ্যামিলি ম্যান’; ঘটনাক্রমে কিল-গেমে নাম লেখাতে বাধ্য হয়।বাড়িতে তার স্ত্রী মিনি আর শিশুপুত্র শানু আছে।কিলগেম হবে নিউ সিটিতে।নিউ সিটির বাসিন্দাদের মনোরন্জনের জন্য ই অমানবিক আর ভয়ংকর সব খেলার আয়োজন করা হয় সেখানে।শ্রীধর পাট্টা হলেন শহরের কর্তা ব্যক্তি।

    মৃত্যুখেলার আগেও অনেক ভয়ংকর সব খেলায় জীতে তবেই আসতে হবে সে খেলায়।দেশের ভয়ংকর তিনজন খুনী অপাশি,প্রোটন আর সুখরামের বিরুদ্ধে একা জিশান কে ছেরে দেয়া হবে এক শহরে।সে শহর খেলার জন্য ই বানানো হয়েছে।বাড়ি, স্কুল, হাসপাতাল, খেলার মাঠ,জঙ্গল সব আছে সেখানে।সেসবে থাকবে মানুষ ও।সেসব মানুষ হল দর্শকরাই যারা টিকেট কেটে খেলা দেখবে।

    খুনী আর প্রতিযোগী ইচ্ছামত অস্ত্র নিতে পারবে। সবার শরীরেই ট্র্যাকার লাগানো থাকবে।টিভিতে সরাসরি দেখানো হবে সে খেলা।খেলায় কোন নিয়ম নেই।খুন করতে হবে খুনীদের জিশানকে।পারলে তারা পাবে মুক্তি।আর জিশান যদি টিকে থাকতে পারে ২৪ ঘন্টা সে শহরে তবে পাবে পুরষ্কার।

    কুক্ষিগত ক্ষমতা,বিবেকহীন আম জনতা,অখন্ড অবসর কাঁটানোর ঊদ্ভট পন্থা মোটামুটি এই সব জন্ম দিয়ে চলছে সমাজের মাথা শ্রীধর পাট্টারা। জিশান এবার মানুষগুলো যেখানে আবেগহীন রোবটে পরিনত সেই মানুষগুলোর মনে কি জাগাতে পারবে মানবতা?পারবে কি টিকে থাকতে এ মৃত্যুখেলায়?

    অমানবিক ধাপ একটা একটা টপকে মানবিকতা কে মানুষের মাঝে জাগিয়ে তোলার গল্পটি পড়ে দেখতে পারেন,ভাল লাগবে হয়ত।

    তবে বইটিকে অনাবশ্যকভাবে টেনে বড় করা হয়েছে বলে আমার মনে হয়।চাইলে লেখক আর একটু কৃপণ হতেই পারতেন!!

  2. Myen Uddin Sharif‎ to বই লাভারজ পোলাপান (Boi Lovers Polapan)

    বর্তমানে ডিসটোপিয়ান ফিকশনের জয়জয়কার। ডিসটোপিয়ান, অর্থাৎ একটি অরাজক ভবিষ্যৎ সমাজ, যেখানে নৈতিকতার অবক্ষয় শেষ সীমায় গিয়ে পৌঁছেছে। কিছু মানুষের জীবনের দাম বলতে কিছুই নেই আবার হায়ার লেভেলে মানুষদের সম্মান অন্যরকম।তারা নিচের লেভেল এর মানুষ গুলোকে পশুর চেয়ে নিচ চোখে দেখে।

    সোজা কথায় বলতে গেলে হাঙ্গার গেমস ট্রিলজি, ডাইভার্জেণ্ট ট্রিলজি, দ্য মেইজ রানার সহ আর অসংখ্য বেস্টসেলার বইয়ের নাম আনা যায় ডিসটোপিয়ান কাতারে।

    এখন আসি ২৩ ঘন্টা ৬০ মিনিট এর ব্যাপারে।বাংলা ভাষায় এর আগে এই সাইডে এতো বড় মাপের মৌলিক বই লেখা হয়েছে বলে আমার জানা নেই।অনীশ দেব খুবই ভালো লিখেছেন। গল্পের নায়ক জিশান। তার সাথে সাথে প্রথম পৃষ্টা থেকেই আপনি এই গল্পে জুড়ে থাকবেন যা ডিসটোপিয়ান ফিকশন পড়ার জন্য আবশ্যক।
    গল্পের পরতে পরতে চমক বলতে যা বোঝায় আপনি তাই ফিল করবেন।আর ভাববেন লেখকের কল্পনা শক্তি কি অসাধারণ!
    আর এটি অনেক দীর্ঘ বই।২পার্টে সমাপ্ত।পরের পার্ট এর নাম ৬০ মিনিট ২৩ ঘন্টা
    হাঙার গেমস দেখে থাকলে কাহীনি হাল্কা সিমিলার লাগতে পারে তবে পুরোই আলাদা কন্সেপ্ট।

    আমি পিডিএফ পড়েছি।পিডিএফ দরকার হলে গুগলেই পাবেন।

    হ্যাপি রিডিং 🙂

Add Your Review